Tips & tricks

অজুর দোয়া-সঠিক নিয়ত ও অজু করার সঠিক নিয়ম এবং শেষের দোয়া

অজুর দোয়া-সঠিক নিয়ত ও অজু করার সঠিক নিয়ম

বাংলাদেশ একটি মুসলিম রাষ্ট্র। এ দেশের 90% মানুষ মুসলিম ধর্মাবলম্বী। কিন্তু আমাদের দেশের অনেক মুসলিম ভাই ও বোনেরা আছে যারা অযুর দোয়া ও নিয়ত এবং ওযু করার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে অবগত নয়। যে সকল ভাই ও বোনেরা ওযুর দোয়া নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান এবং এই দুয়া শিখতে চান তাহলে আজকের পোষ্ট টি আপনার জন্য। এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়বেন তাহলে আপনি ওযুর দোয়া নিয়ত এবং সঠিক নিয়ম জানতে পারবেন। এই পোস্টটি শেয়ার করে আপনি আপনার কাছের বন্ধুবান্ধব আত্মীয় স্বজনকে শেয়ার করে দিন যাতে তারাও এ সম্পর্কে একটি সুন্দর ধারণা পেয়ে যায় এবং শিখতে পারে। অজুর দোয়া নিচে দেওয়া হলো।

অযুর দোয়া ও সঠিক নিয়ম

ওযু করার জন্য সঠিক দোয়া এবং নিয়ম নিচে আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। এই দোয়া এবং ওযুর নিয়ম গুলো সঠিকভাবে এবং সুন্দরভাবে আরবি এবং বাংলা অর্থসহ আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। আশা করি আপনাদের অনেক উপকারে আসবে এবং খুব সহজে আপনি এই দোয়াটি শিখতে পারবেন।

ওযু শুরু করার পূর্বে এই দোয়া পড়তে হবে –

বাংলা উচ্চারণঃ “বিসমিল্লাহিল আলিয়্যিল আজীম , ওয়ালহামদু লিল্লালি আ’লা দীনিল ইসলাম, আল ইসলামু হাক্বকুন, ওয়াল কুফরু বা-ত্বিলুন, আল ইসলামু নূরুন, ওয়াল কুফরু জুলমাতুন।”

অর্থঃ “সর্বশ্রেষ্ঠ, সর্বমহান আল্লাহর নামে অজু শুরু করছি। সমস্ত প্রশংসা আল্লাহ্ তা’আলারই প্রাপ্য – যিনি আমাকে দ্বীন ইসলামের উপর রেখেছেন। ইসলাম সত্য এবং আলোক স্বরূপ আর কুফরী মিথ্যা ও অন্ধকারতুল্য।”

উপরে যে দোয়াটি রয়েছে সেই দোয়াটি হচ্ছে শুরু করার পূর্বে পড়তে হবে। এখন যে দোয়াটি শেয়ার করব সেটি হচ্ছে ওযু করা শেষ হলে এই দোয়াটি পড়তে হবে।

অজু করা শেষ হলে নিম্নলিখিত দোয়াটি পড়া –

বাংলা উচ্চারণঃ “আল্লাহুম্মাজ্বআলনী মিনাত তাওয়্যাবীনা ওয়াজ্বআলনী মিনাল মুতাত্বাহহিরীন।”

অর্থঃ “হে আল্লাহ! আমাকে তওবাকারী এবং পবিত্রতা হাসিলকারীদের অন্তর্ভুক্ত কর।

আরো পড়ুন: শুক্রবার জুমার নামাজের গুরুত্ব ও ফজিলত

অজুর সঠিক নিয়ত

বাংলা উচ্চারণঃ “নাওয়াইতু আন আতাওয়াজ্জায়া লিরাফ’ইল হাদাছি ওয়াস্তিবাহাতাল লিছছালাতি ওয়া তাক্বাররুবান ইল্লাল্লা-হি তা’আলা”

অর্থঃ “আমি নাপাকি দূর করার জন্য, বিশুদ্ধভাবে নামাজ পড়ার ও আল্লাহ তা’আলার নৈকট্য লাভের উদ্দেশ্যে অজু করছি।”

অজু করার সঠিক নিময়

আমাদের মাঝে অনেক মুসলিম ভাইবোনেরা আছে যারা ভাবে যে ওযু একভাবে করলেই হয়ে যায়! কিন্তু এই অজু করতে হলে কিছু গুরুত্বপূর্ণ সঠিক নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। তা না হলে আপনার ও যদি সঠিক নিয়মে হবে না। আজকে আপনাদের সঠিক নিয়মে ওযু করার নিয়ম গুলো নিচে বর্ণনা করব।

  • কা’বা শরীফের দিকে মুখ করে অজু করতে বসিবে
  • পাক পানির বদনা /মগ বাম পার্শ্বে রেখে অজুর দোয়া বিসমিল্লাহিল আলিয়্যিল আজীম পড়ে তারপর অজুর নিয়ত করতে হবে।
  • প্রথমে দু-হাত কব্জি পর্যন্ত ধৌত করতে হবে। প্রথমে ডান হাত এবং পরে বাম হাত ধুতে হবে
  • তারপর ডান হাতে পানি নিয়ে তিনবার গড়গড়া সহ কুলি করতে হবে।
  • এরপর নাকে পানি দিয়ে তিনবার নাক পরিষ্কার করতে হবে।
  • তারপর তিনবার সমস্ত মুখমণ্ডল এমনভাবে ধৌত করতে হবে যাতে চুল পরিমাণ জায়গাও শুকনো না থাকে।
  • ডান হাত এবং পরে বাম হাত কনুই পর্যন্ত তিনবার ধৌত করতে হবে।
  • তারপর দুহাত ভিজিয়ে মাথা ও কান মাসেহ্ করতে হবে। মাসেহ্ করার সময় দু-হাতের বুড়ো ও শাহাদাত আঙ্গুলি আলাদা রেখে বাকি তিন আঙ্গুলি মিলিয়ে আঙ্গুলিগুলোর ভিতর দিক দিয়ে কপালের চুলের গোড়া থেকে পিছন দিকে মাথার এক-চতুর্থাংশ মাসেহ্ করতে হবে। এরপর শাহাদাত আঙ্গুলি দিয়ে হাতের আঙ্গুলিগুলোর পিঠ দিয়ে ঘাড় মাসেহ্ করতে হবে।
  • প্রথমে ডান পা এবং পরে বাম পা তিনবার গিরা পর্যন্ত ভালোভাবে ধৌত করতে হবে যাতে একটু জায়গাও বাকি না থাকে।

উপরে যে ওযুর সঠিক নিয়ম টি উপস্থাপন করা হয়েছে তা একটির পর একটি করতে হবে। এলোমেলোভাবে করা যাবেনা তাহলে আপনার উচিত সঠিক নিয়মে হবে না।