Tips & tricks

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান। সম্মানিত পাঠক, আমাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে জানাই প্রাণঢালা শুভেচ্ছা। আপনি যদি পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান এর সকল প্রশ্ন উত্তর জানতে চান? তাহলে আপনি  সঠিক পোস্ট ভিজিট করেছে। কারণ আজকে আমরা আপনাদের সাথে পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান নিয়ে আলোচনা করব। পদ্মা সেতুর সকল বিস্তারিত খুঁটিনাটি তথ্য আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

 পদ্মা সেতু হচ্ছে বাংলাদেশের গর্ব। আমাদের আইকন হিসেবে দাঁড়িয়ে আছি পুরো বিশ্বের সামনে। এই সেতুর অসাধারণ আর্কিটেক্ট এবং ব্যতিক্রমী কিছু বৈশিষ্ট্যের কারণে পৃথিবীর বুকে একটি অবিস্মরণীয়  সেতু । এই সেতু যেভাবে তৈরি করা হয়েছে বিশ্বের আর কোন দেশে এত টেকনোলজি দিয়ে সেতু তৈরি করা হয়নি। সেইসাথে এই সেতু একসাথে রেল এবং সাধারণ পরিবহন চলাচলের জন্য তৈরি করা হয়েছে। বিশ্বের অন্য কোন দেশে একই সাথে দুটি রাস্তা যেমন রেললাইন এবং পরিবহন চলার মত কোন সেতু তৈরি হয় নি। বিশ্বের প্রথম সেতু হিসেবে পদ্মা সেতুর প্রথম যেখানে রেল টার্মিনাল এবং বাস টার্মিনাল একসাথে যুক্ত হয়েছে।

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২

পদ্মা সেতু হচ্ছে বাংলাদেশের দীর্ঘতম একটি সেতু। এই সেতু বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি স্বপ্ন। যে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে দিয়েছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। হাজারো প্রতীক্ষার পর স্বপ্ন সত্যি হলো। আগের দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষ তারা খুব কষ্টে লঞ্চ  এর মাধ্যমে যাতায়াত করে থাকতেন। কিন্তু বর্তমান সময়ে পদ্মা সেতু সম্পন্ন হওয়ার কারণে তাদের এই ভোগান্তির শেষ হয়েছে ।তারা এখন স্বল্প সময়ের মধ্যে ঢাকা পৌঁছাতে পারবে এবং ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চলের যেতে পারবে ।আগে যেখানে দক্ষিণাঞ্চল থেকে ঢাকা পৌঁছাতে 7 থেকে 8 ঘণ্টা সময় লাগতো। পদ্মা সেতু সম্পন্ন হওয়ার পরে এখন দক্ষিণ অঞ্চল থেকে 4 থেকে 5 ঘণ্টার মধ্যেই ঢাকা পৌঁছাতে পারে।

পদ্মা সেতু কোন জেলায় অবস্থিত

পদ্মা সেতু বাংলাদেশের একটি গর্ব। বাংলাদেশ সহ বিশ্বের প্রথম এই সেতুতে রেলপথ এবং সড়কপথ একসাথে সংযোজন করা হয়েছে। সাধারণ জ্ঞানের গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন হচ্ছে পদ্মা সেতু কোন জেলায় অবস্থিত? মুন্সীগঞ্জের লৌহজং এর সাথে শরীয়তপুর মাদারীপুর জেলা যুক্ত হয় দক্ষিণ-পশ্চিম অংশে অবস্থিত।

পদ্মা সেতু বিশ্বের কততম সেতু?

বর্তমান সময়ে অনেক মানুষ করেছে তার পদ্মা সেতু বিশ্বের কততম সেতু সম্পর্কে অবগত নয়। আজকে আমরা তাদের উদ্দেশ্যে খুঁটিনাটি সাধারণ জ্ঞানের কিছু প্রশ্ন উত্তর আপনাদের সাথে শেয়ার করব। যে প্রশ্নের উত্তর গুলো আপনারা হয়তো কখনো জানতে চান কিংবা কোনো কারণবশত কারণ নেই জানার আগ্রহ প্রকাশ করেন নি।পদ্মা সেতু বিশ্বের মধ্যে ১২২ তম অবস্থান করছে। তবে আমাদের পদ্মা সেতু সুইডেনের অল্যান্ড ব্রিজকে পেছনে ফেলে ১২২ তম অবস্থান নিয়েছে।

পদ্মা সেতু সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য

>>পদ্মা সেতুর প্রকল্পের নাম:   পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প।

>>পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য:  ৬.১৫ কিলোমিট।

>>পদ্মা সেতুর প্রস্থ:  ৭২ ফুট।

>>পদ্মা সেতুর স্প্যান সংখ্যা: ৪১ লেন।

>>পদ্মা সেতুর রেল লাইনের অবস্থান: পদ্মা সেতুর রেল লাইনের অবস্থান নিচতলায়।

>>পদ্মা সেতুর ভায়াডাক্ট: ৩.১৮ কিলোমিট।

>>পদ্মা সেতুর সংযোগ সড়ক: দুই প্রান্তে প্রায় ১৪ কিলোমিটার।

>>পদ্মা সেতুর প্রকল্প নদী শাসন: দুই পারে প্রায় ১২ কিলোমিটার।

>>পদ্মা সেতুর প্রকল্প ব্যয়: ৩০ হাজার ১৯৩ দশমিক ৩৯ কোটি টাকা।

>>পদ্মা সেতুর প্রকল্পের জনবল: প্রায় ৪ হাজার।

>>পদ্মা সেতুর ভায়াডাক্ট পিলার: ৮১ টি।

>>পানির স্তর থেকে পদ্মা সেতুর উচ্চতা: ৬০ ফুট।

>>পদ্মা সেতুর পাইলিং গভীরতা: ৩৮৩ ফুট।

>>পদ্মা সেতুর প্রতিটি পিলারের জন্য পাইলিং: ৬ টি।

>>পদ্মা সেতুর মোট পাইলিং সংখ্যা: ২৬৪ টি।

>>পদ্মা সেতুতে যা যা থাকবে: বিদ্যুৎ, গ্যাস এবং অপটিক্যাল ফাইবার লাইন।

>>পদ্মা সেতুর ধরন: দ্বিতল বিশিষ্ট কংক্রিট এবং স্টিল দ্বারা নির্মিত এই সেতু।

>>পদ্মা সেতুর পিলার কয়টি: ৪২ টি।

>>পদ্মা সেতুর প্রকল্পের চুক্তিবদ্ধ কম্পানি: চায়না রেলওয়ে গ্রুপ লিমিটেড।

>>পদ্মা সেতুর নকশা: এইসিওএমের নেতৃত্বে আন্তর্জাতিক এবং জাতীয় পরামর্শকদের নিয়ে একটি দল গঠন করা হয়। আর তারাই হচ্ছে পদ্মা সেতুর নকশা পরামর্শদাতা।

>>পদ্মা সেতুর প্যানেলের সভাপতির নাম: অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী।

>>পদ্মা সেতুর স্প্যান বিশেষজ্ঞ দল সদস্য সংখ্যা: ১১ জন।

>>পদ্মা সেতুর কাজ: মূল সেতু, নদী শাসন, জাজিরা সংযোগকারী সড়ক, টোল প্লাজা.

>>পদ্মা সেতু নির্মাণের আনুষ্ঠানিক চুক্তি: ১৭ই জুন, ২০১৪ইং সালে বাংলাদেশ সরকার এবং চিনা চায়না মেজর ব্রিজ কোম্পানির সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়।

পদ্মা সেতু দৈর্ঘ্য কত?

 পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য ৬.১৫ কিলোমিটার (পানির উপরের অংশ)। আর যদি সমস্যা হয় তাহলে এর দৈর্ঘ্য প্রায় ৯ কিলোমিটার।