Tips & tricks

বানৌজা শেখ মুজিব খিলক্ষেত ঢাকা-নিউস ডেস্ক

বানৌজা শেখ মুজিব খিলক্ষেত ঢাকা

সম্মানিত পাঠক, আজকে আমাদের আলোচনার বিষয় হচ্ছে বানৌজা শেখ মুজিব।বানৌজা শেখ মুজিব ঢাকার খিলক্ষেতে অবস্থিত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর পূর্ণবর্ধিত একটি ঘাঁটি। এটি নৌবাহিনীর বৃহত্তম ঘাঁটিগুলির মধ্যে একটি। বানৌজা শেখ মুজিব খিলক্ষেত ঢাকা সম্পর্ন প্রতিবেদন নিচে দেওয়া হলো।

বানৌজা শেখ মুজিব  এর ইতিহাস

৫ নভেম্বর ২০১৮ সালে নৌঘাঁটি ‘বানৌজা শেখ মুজিব’ এর কমিশনিং করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা ও উদ্ধার অভিযানে সহায়তার লক্ষ্যে এই নৌঘাঁটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

বানৌজা শেখ মুজিব  এর ইতিহাস

ধরন                :    সামরিক ঘাঁটি

নিয়ন্ত্রন করে    :   বাংলাদেশ নৌবাহিনী

সাইটের তথ্য    :    মালিক  বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী

সাইটের ইতিহাস

ব্যবহারকাল    :    ২০১৮ – বর্তমান

নির্মিত            :    ২০১৮

বানৌজা শেখ মুজিব নৌ-ঘাঁটি’ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আগামীতে আবারো নির্বাচিত হলে নৌবাহিনীকে আরো শক্তিশালী করার উদ্যোগ নেয়া হবে।সোমবার (৫ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর খিলক্ষেতে বানৌজা শেখ মুজিব নৌ-ঘাঁটি কমিশনিংসহ নৌবাহিনীর বেশকিছু প্রকল্প উদ্বোধন করে এ কথা বলেন তিনি। শেখ হাসিনা বলেন, নবনির্মিত এসব স্থাপনা রক্ষণাবেক্ষণে মনযোগী হতে হবে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের।

বানৌজা শেখ মুজিব অনুষ্ঠানটিতে দুর্যোগ মোকাবেলা আর উদ্ধার অভিযানের লক্ষ্য নিয়ে জাতির পিতার নামে এই প্রথমবারের মতো প্রতিষ্ঠা পেল বানৌজা শেখ মুজিব নৌ-ঘাঁটি।অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নবনির্মিত এই ত্রিমাত্রিক নৌঘাঁটি অপারেশনাল সক্ষমতা বাড়াবে নৌবাহিনীর। আবারো ক্ষমতায় এলে আরো সমৃদ্ধ করা হবে এই বাহিনীকে।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা-খুলনা ও চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলের জন্য ২২টি বহুতল ভবন উদ্বোধন এবং সাভারে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাদের জন্য আবাসন প্রকল্পের ভিত্তিপ্র্রস্তর স্থাপন করেন।

এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘নবনির্মিত এই ত্রিমাত্রিক নৌঘাঁটি অপারেশনাল সক্ষমতা বাড়াবে নৌবাহিনীর। আবারো ক্ষমতায় এলে আরো সমৃদ্ধ করা হবে এই বাহিনীকে।’