News

ইমরানের ডাকে একযোগে দলের সব এমপি পদত্যাগ

ইমরানের ডাকে একযোগে দলের সব এমপি পদত্যাগ। পাকিস্তানের সাবেক সংসদ সদস্য ও প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এর ডাকে সকল এমপি পদত্যাগ করেছেন। গত সোমবার দেশটির সংসদের নিম্ন কক্ষে জাতীয় পরিষদ থেকে একযোগে ইমরান খানের নেতৃত্বে তার দলের সকল এমপি পদত্যাগ করেন। নতুন প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনের আগেই ইমরান খানের সকল নেতৃবৃন্দ সংসদ থেকে বের হয়ে যাবে এর ফলে বিরোধী জোটের নেতারা সংসদে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হতে পারে।

ইমরান খান এর আগে জাতীয় পরিষদ ভবনে তার দলের সকল এমপির সাথে বৈঠক করেন এবং সেখানে নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের জন্য পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে অধিবেশন বয়কট ঘোষণা করেন।সোমবার অ্যাসেম্বলিতে পাকিস্তানের অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের ভোট হওয়ার আগেই জাতীয় পরিষদ ভবনে উপস্থিত হন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তারপর দলের সব এমপির সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।

তিনি এমপিদের উদ্দেশে  বলেন, ‘আমরা কোনো পরিস্থিতিতেই আর জাতীয় পরিষদে অধিবেশনে বসব না।ইমরান খান সহ তার দলের সকল এমপি দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যারা পাকিস্তানের নতুন সরকার গঠন করতে যাচ্ছে তাদেরকে চাপে রাখতে হবে। আর এই সিদ্ধান্ত অটুট রাখার জন্য আমরা সবাই পার্লামেন্ট থেকে পদত্যাগ করবো।

ইমরান খানের এই সিদ্ধান্তের পর তার দলের সকল এমপি প্রথমদিকে বিপক্ষে ছিল। পরে তার যুক্তি কারণে পিটিআইয়ের এমপিরা পদত্যাগ করে। যার ফলে নির্বাচনের মাঠ ফাঁকা হয়ে যাবে এবং বিরোধীদের জন্য জয়ী হওয়ার অসুবিধা হবে। এই কথার উপর ভিত্তি করে ইমরান খান বলেন আমি হব পদত্যাগ করা প্রথম এমপি এবং অন্য কেউ যদি পদত্যাগ করতে না চায় তবু আমি পদত্যাগ করবো।

ইমরানের ডাকে একযোগে দলের সব এমপি পদত্যাগ

ইমরান খানের এই বক্তব্যের পর তার দলের সকল এমপি একযোগে পদত্যাগ করেন এবং বলেন যে এ ব্যাপারে দল নেতার নির্দেশ অনুযায়ী পদক্ষেপ নেবেন তারা। ইমরান খান সহ তার দলের নেতাকর্মীর এইসকল বক্তব্যের পর ডেপুটি স্পিকার কাসিম ছুরির সভাপতিত্বে নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের জন্য জাতীয় পরিষদের অধিবেশন শুরু হয়।

অধিবেশন শুরু হওয়ার পরপরই পাকিস্তানের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ইমরান খান এর দলের প্রধানমন্ত্রী শহ মোহাম্মদ করেসি জানান, তারা গণহারে পদত্যাগ করবেন এবং নতুন প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনের প্রক্রিয়া তারা অংশ নেবেন না।এ ঘোষণার পর ডেপুটি স্পিকার কাসেম সুরিও অধিবেশন ছেড়ে বের হয়ে যান।

ডেপুটি স্পিকার অধিবেশন ছাড়ার পর মুসলিম লীগ পি এম এল এন এবং নতুন প্রধানমন্ত্রী জন্য দায়িত্ব নেন। ইমরান খানের দলের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দিতা করার জন্য মনোনয়ন দিয়েছিলেন কিন্তু ভোট শুরু হওয়ার আগেই জাতীয় পরিষদ থেকে পদত্যাগ করায় এখন বাস শরীফ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন।

পিটিআইয়ের জ্যেষ্ঠ নেতারা এবং ইমরান খানের সরকার এর তথ্যমন্ত্রী নিশ্চিত করেন যে 11 এপ্রিল পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দলের সদস্যরা সংসদ থেকে পদত্যাগ করতে পারেন। এই তথ্যটি পাওয়ার পর খাওয়াত বলেন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিরোধী নেতা শাহবাজ শরীফের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করার পর সিদ্ধান্ত আরও জোরালো হয়েছে। এই সিদ্ধান্তটি নেওয়ার পর আপত্তি জানিয়েছিল পিটিআই। পিটিআইয়ের আপত্তি জানানো সত্ত্বেও জাতীয় পরিষদের সচিবালয় এই বিষয়টি আমলে না নিয়ে মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছে।

যদি ইমরান খান নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করেন তাহলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তাদের বিরোধীদলীয় দল ক্ষমতায় চলে যাবে। যেমন বাংলাদেশে হয়েছিল বিএনপি পার্লামেন্ট পদত্যাগ করার ফলে আমলিক বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হয়েছিল। এই ভুল যদি ইমরান খান করে তাহলে সে তার ক্ষমতা হারাবে এবং সেইসাথে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় তাদের বিরোধী দলীয় জোট ক্ষমতায় চলে যাবে।

পাকিস্তানের পার্লামেন্টের সকল ধরনের আপডেট খবর জানতে আপনারা আমাদের এই ওয়েবসাইটের সাথে থাকবেন। সেই সাথে আমাদের ওয়েবসাইটটি বুকমার্ক করে রাখবেন যেন সকল ধরনের আপডেট আপনারা সাথে সাথে পেয়ে যান।