Skip to content
Home » পুতিনের ফাঁদে পশ্চিমারা-জ্বালানির সম্পূর্ন মূল্য চুকাতে হবে রুবলে

পুতিনের ফাঁদে পশ্চিমারা-জ্বালানির সম্পূর্ন মূল্য চুকাতে হবে রুবলে

পুতিনের ফাঁদে পশ্চিমারা-জ্বালানির সম্পূর্ন মূল্য চুকাতে হবে রুবলে

পুতিনের ফাঁদে পশ্চিমারা-জ্বালানির সম্পূর্ন মূল্য চুকাতে হবে রুবলে, এবার পুতিনের নতুন ফাঁদ। রাশিয়া থেকে যে কোন দেশ জ্বালানি কিনলে তার সম্পূর্ণ মূল্য পরিশোধ করতে হবে রাশিয়ান মুদ্রা রুবলে। রাশিয়ার মন্ত্রিসভার কার্যালয়ে এ কথা জানায় দেশটির প্রেসিডেন্ট পুতিন। তিনি আরো বলেন বাজারের সংঘর্ষ বজায় রেখেই জ্বালানি বিক্রি করা হবে এবং এর মূল্য পরিশোধ করতে হবে দেশটির যে টাকা রয়েছে রুবেল তার মাধ্যমে। মিত্র দেশগুলোর ক্ষেত্রেও এগুলো কার্যকর হবে না বলেছেন পুতিন।

এই ঘোষণা দেওয়ার সাথে সাথেই রাশিয়ার মুদ্রার দাম বেড়ে গিয়েছে সেই সাথে ইউরোপের বাজারে গ্যাসের দাম 30 শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। এ সিদ্ধান্তগুলো অন্যান্য দেশের মন্ত্রিসভা যুক্তির সিদ্ধান্ত হিসেবে দেখছে। এ তথ্য উঠে এসেছে ইউরোপের প্রায় 40% জ্বালানি ক্রয় করতে হয় রাশিয়া থেকে।

বুধবার মন্ত্রণালয়গুলোর সঙ্গে এক বৈঠকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, ‘রাশিয়া নিশ্চিতভাবে পরিমাণ এবং মূল্যের সঙ্গে সমন্বয় করে প্রাকৃতিক সরবরাহ অব্যাহত রাখবে। আগে শেষ হওয়া চুক্তি অনুযায়ী।’

তিনি বলেন, ‘পরিবর্তন শুধু হবে মূল্য পরিশোধের মুদ্রায়, যা রুশ রুবলে পরিশোধ করতে হবে।পুতিন স্পষ্ট বার্তায় জানিয়েছেন, ‘জ্বালানি চাইলে আমাদের মুদ্রায় কিনুন’। তবে ইতোমধ্যে সই হয়ে যাওয়া যেসব চুক্তিতে ইউরোতে মূল্য পরিশোধের কথা বলা আছে সেসব চুক্তি বদলানোর ক্ষমতা এককভাবে রাশিয়ার রয়েছে কিনা তা এখন পর্যন্ত স্পষ্ট নয় বলে জানায় রয়টার্স।

বন্ধু নয় এমন রাষ্ট্র যদি রাশিয়া জ্বালানি কিনে তাহলে দাম পরিশোধ করতে হবে রুশ মুদ্রা রুবলে। বুধবার (২৩ মার্চ) রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এ কথা জানিয়েছেন। এই পদক্ষেপে ইউরোপে জ্বালানির দাম আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

বাংলাদেশসহ পৃথিবীর যে কোনো গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ জানতে আমাদের এই ওয়েবসাইটটি ফলো করবেন। সেই সাথে শেয়ার কমেন্ট করে আরো সবাইকে জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবেন।

Read More>> অবসেশ ইউক্রেনের কিয়েভ দখল করলো রাশিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *