SMS

রমজান মাস নিয়ে উক্তি ,এস এম এস, পিকচার

রমজান মাস নিয়ে উক্তি ,এস এম এস, পিকচার। সম্মানিত পাঠক, আসসালামু আলাইকুম। আপনাকে জানাই মাহে রমজানের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আজকে আমরা হাজির হয়েছে পবিত্র রমজান মাসের স্ট্যাটাস দিয়ে এসএমএস এবং পিকচার। দীর্ঘ 11 টি মাস অতিবাহিত হওয়ার পর আবার চলে এলো পবিত্র রমজান মাস। মুসলিম জাতির জন্য খুশির বার্তা হিসেবে রমজান মাস প্রতি বছর আসে। এই মাসটির জন্য মুসলিমরা অপেক্ষা করে একটি বছর। আপনারা যারা এই মাছটিকে ভালবাসেন তাদের জন্য আজকে আমরা মাহে রমজানের শুভেচ্ছা বার্তা স্ট্যাটাস উক্তি এসএমএস নিয়ে হাজির হয়েছি।

পবিত্র রমজান মাস মুসলিম জাতির একটি ইবাদতের মাস। এ মাসটি পাপমোচনের মাস। এই মাসে ইবাদতের মাধ্যমে সকল পাপীতাপী মুক্তি পায়। এ মাসে রয়েছে রহমত বরকত এবং নাজাত।

মুসলিম জাতি হিসেবে আমাদের উচিত এই পবিত্র রমজান মাসে প্রত্যেকটি রোজা করা। সে সাথে সিয়াম সাধনার মাধ্যমে আমাদের পাপ মোচন করা। তাহলে চলুন পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা ও সুন্দর সুন্দর উক্তি এসএমএস এবং পিকচার আপনাদের সাথে শেয়ার করা যাক। সেই সাথে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনারা একটি লাইক দিয়ে রাখবেন যাতে নতুন কোনো আপডেট আসলে আপনারা সাথে সাথে পেয়ে যান।

আরো জানুন: ২০২২ সালের রমজান কত তারিখ ও রমজান মাসের ক্যালেন্ডার

আইয়্যামে বীজের রোজা কি এবং এই রোজা রাখার ফজিলত

রমজান মাস নিয়ে উক্তি

নতুন বছরে 2022 সালে পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানাই সকলকে। যে সকল মুসলিম প্রিয় ভাই ও বোনেরা রমজান মাস উপলক্ষে স্ট্যাটাস উক্তি এসএমএস সার্চ করতে চান তাদের জন্য আজকে আমরা নিয়ে এসেছি। পবিত্র মাহে রমজানের স্ট্যাটাস উক্তি পিকচার। যদি আপনি এই মাসকে উপলক্ষ করে ফেসবুক কিংবা আপনাদের প্রিয়জনদের সাথে মাহে রমজানের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে চান তাহলে আমাদের এই ওয়েবসাইটটি ফলো করবেন। কারণ আজকে আমরা আপনাদের জন্য নতুন কিছু শুভেচ্ছাবার্তা উক্তি এবং স্ট্যাটাস নিয়ে হাজির হয়েছি।

  • পবিত্র মাহে রমজান মাস শুরু হলে জাহান্নামের দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং জান্নাতের দরজা উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। মাহে রমজান

 

  • প্রত্যেক জিনিসের খোরাক আছে আর মানুষের দেহের খোরাক হচ্ছে রমজান। যা মানুষকে পবিত্র করে তোলে। সবাইকে জানাই পবিত্র রমজানের শুভেচ্ছা।

 

  • সারা দিন মহান প্রতিপালকের হুকুমে রমজান পালন করি, অবশেষে চেয়ে থাকে ইফতারের দিকে, কখন আসবে সেই সময়।

 

  • আমি পাপি গুনাগার আমার দোয়া কবুল করো এই মাহে রমজানের দিনে। এই মাস ধৈর্যের এই মাস আমোলের। পবিত্র রমজান

 

  • পবিত্র মাহে রমজান কাটুক আমল, রোজা, দান সদকা দিয়ে। এই মাসে সবাই নিজেকে পরিশুদ্ধ করে মহান  প্রতিপালকের কাছে তুলে ধরি। শুভ রমজান

 

  • পবিত্র মাহে রমজান মাসেই আছে রহমত, নাজাত , মাগফিরাত , তাইতো চেয়ে থাকি তোমারি প্রাণে হে মাহে রমজান।

 

  • মাহে রমজান কাটুক সবার কোরআন তেলাওয়াত শুনে। পবিত্র রমজান মাসের জন্য রইল অনেক শুভেচ্ছা।

রমজান মাস নিয়ে এস এম এস

রমজান উপলক্ষে করে যারা অধির আগ্রহে এবং অনেক আশা করে রমজান মাসকে ঘিরে প্রিয়জনকে শুভেচ্ছা জানাবেন। তাদের জন্য আজকে আমরা হাজির হয়েছি রমজান নিয়ে সুন্দর কিছু এসএমএস নিয়ে। আজকে আমরা আপনাদের সাথে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে সুন্দর সুন্দর কোরআনের আলোকে এসএমএস শেয়ার করব। যেগুলো তারা আপনি আপনার কাছের মানুষদের পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে পারবেন।

১. রোজাদারদের মুখের দুর্গন্ধ আল্লাহ তাআলার কাছে মেশকের চেয়ে বেশি ঘ্রানযুক্ত।

— আল হাদিস

২. ধ্বংস হোক ঐ ব্যক্তি যে রমজান মাস পেল, তবুও তার গুনাহ মাপ করাতে পারল না।

 –আল হাদিস

৩.বান্দা রোজা রাখে আমার জন্য আর রোযার প্রতিদান আমি নিজেই দিব

— আল হাদিস

৪.রোজা কিয়ামতের দিন মুমিন ব্যক্তির জন্য সুপারিশকারী হবে।

— আল হাদিস

৫.রোজা হচ্ছে জাহান্নাম থেকে মুক্তির ঢাল স্বরূপ

–আল হাদিস

৬.হে ঈমানদারগণ, তোমাদের উপর রোজা ফরয করা হয়েছে। যেমন ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তী লোকদের উপর। যেন তোমরা পরহেযগারী অর্জন করতে পারো।

–আল কোরআন

৭.রমজান জান্নাতে যাওয়ার উৎকৃষ্টতম উপায় এবং রাইয়ান নামক বিশেষ দরজা দিয়ে জান্নাতে প্রবেশের সুযোগ।

— আল হাদিস

রমজান মাস নিয়ে পিকচার

সবাইকে জানাই পবিত্র মাহে রমজানের পবিত্র ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা। আল্লাহ তাআলা আমাদের সবাইকে কবুল করে নেন। আজকে আপনাদের সাথে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে কিছু মসজিদ এবং ধর্মীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সুন্দর সুন্দর পিকচার শেয়ার করব। যে পিকচারগুলো আপনারা পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ফেসবুক কিংবা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া তাছাড়াও আপনাদের কাছের মানুষদের সাথে শেয়ার করতে পারবেন। তাহলে চলুন নিচে পিক গুলো দেখা যাক।

হে মুমিনগণ! তোমাদের জন্যে সিয়ামের বিধান দেওয়া হলো, যেমন বিধান তোমাদের পূর্ববর্তীগণকে দেওয়া হয়েছিল, যাতে তোমরা তাকওয়া বা আল্লাহ ভীরুতা অবলম্বন করতে পারো। (সূরা বাকারাহ-১৮৩)

সিয়ামের রাতে তোমাদের জন্যে তোমাদের স্ত্রীদের বৈধ করা হয়েছে। তারা তোমাদের জন্যে এবং তোমরাও তাদের জন্যে পরিচ্ছদ। আল্লাহ জেনেছেন যে, তোমরা তোমাদের নিজেদের সাথে খিয়ানত করছিলে, অতঃপর তিনি তোমাদের তাওবা কবুল করেছেন এবং তোমাদেরকে মার্জনা করেছেন, সুতরাং এখন তোমরা তাদের সাথে সংগত হও এবং আল্লাহ তোমাদের জন্যে যা নির্ধারণ করে রেখেছেন (অর্থাৎ সন্তান) তা অন্বেষণ করো। আর তোমরা আহার করো ও পান করো যতক্ষণ তোমাদের জন্যে (রাত্রির) কালো রেখা থেকে ফজরের সাদা রেখা স্পষ্ট হয়ে যায়। এরপর রাত পর্যন্ত সিয়াম পূর্ণ করো। আর তোমরা মসজিদে ই’তিকাফ অবস্থায় তাদের সাথে সংগত হয়ো না। এগুলো আল্লাহর (নির্ধারিত) সীমা, সুতরাং এর নিকটবর্তী হয়ো না। এভাবেই আল্লাহ মানুষের জন্যে তার আয়াতসমূহ স্পষ্টভাবে বর্ণনা করেন, যাতে তারা তাকওয়া বা আল্লাহভীরুতা অবলম্বন করতে পারে। (সূরা বাকারাহ-১৮৭)

রমজান মাস নিয়ে পিকচার

রমাজান মাস, এ মাসেই মানুষের জন্য আলোর দিশা এবং সৎপথের স্পষ্ট নিদর্শন ও সত্যাসত্যের পার্থক্যকারীরূপে কোরআন অবতীর্ণ হয়েছে। সুতরাং তোমাদের মধ্যে যারা এ মাস পাবে তারা যেন এ মাসে সিয়াম পালন করে এবং কেউ অসুস্থ্য থাকলে কিংবা সফরে থাকলে অন্য সময় এ সংখ্যা পূরণ করবে। আল্লাহ তোমাদের জন্যে যা সহজ তাই চান এবং যা তোমাদের জন্যে কষ্টকর তা চান না, এজন্যে যে তোমাদের সংখ্যা পূর্ণ করবে এবং তোমাদের সৎপথে পরিচালিত করার কারণে তোমরা আল্লাহর মাহিমা ঘোষণা করবে এবং যাতে তোমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে পারো। (সূরা বাকারাহ-১৮৫)

রমজান মাস নিয়ে পিকচার

 সিয়াম নির্দিষ্ট কয়েক দিনের। তোমাদের মধ্যে কেউ অসুস্থ হলে অথবা সফরে থাকলে অন্য সময় এই সংখ্যা পূর্ণ করবে। যাদের জন্য অতিশয় কষ্টদায়ক হয় তাদের কর্তব্য এর পরিবর্তে ফিদইয়া-একজন অভাবগ্রস্তকে খাদ্যদান করা। যদি কেউ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সৎকাজ করে তবে তা তার পক্ষে অধিক কল্যাণকর। আর সিয়াম পালন করাই তোমাদের জন্যে অধিকতর কল্যাণকর যদি তোমরা তা জানতে। (সূরা বাকারাহ-১৮৪)

রমজান মাস নিয়ে পিকচার